মধ্যযুগীয় স্টাইলে জীপের সামনে দড়ি দিয়ে বেঁধে যুবককে এলাকাময় ঘোরালো ভারতীয় সেনাবাহিনী

আন্তর্জাতিক । ডেস্ক রিপোর্ট: পোস্টকার্ড | প্রকাশিত: ১৫ এপ্রিল ২০১৭, ০১:১৯ অপরাহ্ন
nm

কাশ্মীরের জনগনের উপর ভারতীয় রাষ্ট্র যন্ত্রের অমানবিক নির্যাতনের আরেকটি ঘটনা প্রকাশ পেল। মধ্যযুগীয় সামন্ত প্রভুদের স্টাইলে সেনাবাহিনীর জীপের সামনে দড়ি দিয়ে বেঁধে  এক যুবককে এলাকায়ময় ঘোরানো হয়। জঘন্য এই ঘটনাটি ঘটছে  কাশ্মীরের বুদগাম জেলায়।


কাশ্মীর উপত্যকায় সামরিক কনভয়ের একটি গাড়ীতে ওই তরুণকে বেঁধে নেয়ার সময় একজন সৈন্যকে বলতে শোনা গেছে 'যে পাথর মারবে তার একই পরিণতি হবে'।


ভিডিওটি  পোস্ট করেছে জম্মু ও কাশ্মীর ন্যাশনাল কনফারেন্সের মুখপাত্র জুনায়েদ আজিম মাত্তু, পোস্ট দিয়েছেন টুইটারেও।


রাজ্য প্রশাসন তদন্তে নেমে জেনেছে, ৫৩ রাষ্ট্রীয় রাইফেলস-এর জওয়ানরাই এ ঘটনায় জড়িত।

ঐ যুবকের নাম ফারুক দার। বাদগামের সিতাহরন গ্রামের বাসিন্দা তিনি। তদন্তকারীদের ফারুক জানিয়েছেন, তিনি ভোট দিতে বেরিয়েছিলেন। তার পরে বোনের বাড়ি যাচ্ছিলেন। পথে জওয়ানেরা তাঁকে পাকড়াও করে। সেনা ইউনিটটি নির্বাচন কর্মীদের সঙ্গে গ্রামে ঢোকার চেষ্টা করছিল। ফারুকের দাবি, তাঁকে জিপে বেঁধে প্রায় ১০-১২টি গ্রামে ঘোরানো হয়েছে।


উল্লেখ্য দীর্ঘিদিন ধরে কাশ্মীরে ভারতের রাষ্ট্রীয় বাহিনীগুলো জনগনের স্বাধীনতার দাবিকে দমিয়ে রাখতে চরম নির্যাতন চালিয়ে আসছে।  এর মধ্যে সম্প্রতি কাশ্মীরে অনুষ্ঠিত এক উপনির্বাচনকে ঘিরে সহিংসতা  আরো ব্যাপক আকার ধারণ করেছে।